আজ ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ৪:০০

বার : শনিবার

ঋতু : বর্ষাকাল

৫ মিনিটে করে তুলুন সুগন্ধময়,বৃষ্টির দিনে ঘরে ভ্যাপসা গন্ধ?

আষাঢ়ে ডাকছে আকাশ, ঝরছে বৃষ্টি। আকাশ ফাটা বৃষ্টি যেন থামছেই না। কখনো ঝমঝমিয়ে আবার কোনো সময়ে ঝিরিঝিরি ধারায় ভিজছে। এতে কমেছে তাপমাত্রা, শুরু হয়েছে বর্ষারভাব। এর প্রভাব পড়েছে জীবনযাত্রায়।এই সময় বাতাসে আর্দ্রতার মাত্রা বেশি থাকায় জামাকাপড় শুকাতে বেশি সময় লাগছে। এছাড়া ঘরের মেঝেও সারাক্ষণ স্যাঁতস্যাঁত করছে। এমনকি দেওয়ালও ভিজে থাকছে। এসব কিছুর জন্য ঘরজুড়ে একটা ভ্যাপসা গন্ধ বিরাজ করে। এই গন্ধ দূর করতে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছেন সবাই।

এই বর্ষায় ভ্যাপসা গন্ধ এড়িয়ে আপনার ঘরকে সুগন্ধময় রাখতে যা করবেন

ঘরের দুর্গন্ধ দূর করার জন্য সব সময়ে দরজা-জানালা খোলা রাখুন। এতে আপনার ঘরে সব সময়ে হাওয়া-বাতাস চলাচল করবে। ফলে গুমোটভাব হবে না। আর গন্ধ হওয়ার সম্ভাবনাও কম থাকবে। কারণ একটা ঘরের ভেন্টিলেশন ঠিকঠাক হলে সেখানে পরিবেশ স্বাস্থ্যকর থাকে। দুর্গন্ধও অনেকটা কমে যায়।» একটি পাত্রে পরিমাণ মতো পানি নিয়ে ফোটান। একবার ফুটে গেলে তাতে যোগ করুন শুকিয়ে রাখা লেমন গ্রাস। তারপর আরও ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এবার আঁচ বন্ধ করে পাত্র ঢাকা দিয়ে দিন। ঠাণ্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শেষে অন্য একটি কাচের শিশিতে এই মিশ্রণ ঢালুন। তাতে যোগ করুন কয়েক ফোঁটা লেমন গ্রাস অয়েল এবং পিপারমিন্ট অয়েল। এবার সেটি সারা ঘরে স্প্রে করুন। আপনার ঘরে একটি তরতাজাভাব অটুট থাকবে।

» কাচের শিশিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ডিসটিলড ওয়াটার নিন। তাতে মেশান ৫ ফোঁটা লেমন এসেনশিয়াল অয়েল এবং রোজমেরি এসেনশিয়াল অয়েল। এরপর ২ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল মেশাতেও ভুলবেন না। প্রতিটি উপকরণ ভালোভাবে মেশানোর পরে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। সেটা স্প্রে করুন সারা ঘরে। সুগন্ধ অটুট থাকবে আর পোকামাকড়ও থাকবে দূরে।

» প্রতিদিন একবার করে ঘরের মেঝে মোছেন নিশ্চয়ই। এই ঘর মোছার পানিতে সুগন্ধি ফ্লোর ক্লিনার এবং অ্যান্টিসেপটিক মেশান। তারপর সেটা দিয়েই সারা বাড়ি মুছুন। রান্নাঘর থেকে বসারঘর, এমনকি বেডরুমেও ব্যবহার করুন এটি। তাতে সারা বাড়িতে সুগন্ধ ভরপুর থাকবে।

এমএসএ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category