আজ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১১:২৩

বার : শনিবার

ঋতু : বসন্তকাল

উত্তর-পূর্ব ভারতকে যুক্ত করে বাংলাদেশে শিল্পাঞ্চল তৈরির প্রস্তাব জাপানের

উত্তর-পূর্ব ভারতকে যুক্ত করে বাংলাদেশে শিল্পাঞ্চল তৈরির প্রস্তাব জাপানের

এবার ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলকে যুক্ত করে বাংলাদেশে একটি শিল্পাঞ্চল তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে জাপান। প্রস্তাবিত শিল্পাঞ্চলের পণ্য ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, নেপাল ও ভুটানে পৌঁছে দিতে সমুদ্রবন্দর উন্নয়নসহ যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার আগ্রহ প্রকাশ করেছে দেশটি। বুধবার (১২ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা ভারত সফর করেন। তার ঐতিহাসিক সফরের পরপরই শিল্পাঞ্চলের প্রস্তাবটি জানালো জাপান। প্রস্তাবিত শিল্পাঞ্চল থেকে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, যেখানে প্রায় ৩০ কোটি মানুষের বসবাস এবং বঙ্গোপসাগর উপকূলবর্তী এলাকার উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে বলে মনে করেন জাপানি প্রধানমন্ত্রী।

কিশিদার ভারত সফরের পর তিনটি গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রকল্পে বাংলাদেশে বিনিয়োগে ১২৭ কোটি মার্কিন ডলার অনুমোদন করেছে জাপান সরকার। এরমধ্যে মাতারবাড়ী অঞ্চলে নতুন একটি বাণিজ্যিক সমুদ্রবন্দর হবে। এর সঙ্গে ত্রিপুরাসহ ভারতের স্থলবেষ্টিত উত্তর-পূর্বাঞ্চলকে সংযুক্ত করা হবে। আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সম্পর্ক বিস্তৃত করাই এর লক্ষ্য।

ভারতে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোশি সুজুকি মঙ্গলবার (১১ এপ্রিল) ত্রিপুরার আগরতলায় ভারতীয়, বাংলাদেশি এবং জাপানি কর্মকর্তাদের বৈঠকে শিল্পাঞ্চল প্রতিষ্ঠার প্রস্তাবের কথা উল্লেখ করে বলেন, প্রস্তাবটি ভারত ও বাংলাদেশ উভয়ের জন্যই লাভজনক হতে পারে। তিনি আরও বলেন, গভীর সমুদ্রবন্দরটি ২০২৭ সালের মধ্যে চালুর সম্ভাবনা রয়েছে। এটা ঢাকাকে ভারতের স্থলবেষ্টিত অঞ্চলগুলোর সঙ্গে সংযোগের ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

জাপানের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানান ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় অঞ্চলের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জি কিশান রেড্ডি। এদিকে এটি ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্প্রসারণের পাশাপাশি জাপান ও অন্যান্য বিদেশি বিনিয়োগের দ্বার খুলে দেবে বলে আশা প্রকাশ করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

জাপানের রাষ্ট্রদূত সুজুকি আরও বলেন, বর্তমানে তিন শতাধিক জাপানি কোম্পানি বাংলাদেশে কাজ করছে। শিল্প উৎপাদন বাড়ানো এবং বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে দুই দেশের মধ্যে সামনে আরও অর্থনৈতিক অংশীদারি চুক্তি হতে পারে।

জাপানের সঙ্গে বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। জাপানের প্রধানমন্ত্রী কিশিদার আমন্ত্রণে আগামী ২৫ থেকে ২৮ এপ্রিল জাপান সফরের কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category