আজ ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : বিকাল ৪:০১

বার : বুধবার

ঋতু : গ্রীষ্মকাল

তিনি কি সুচিকিৎসা পেয়েছেন? আল্লামা সাঈদীর চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি মহাসচিবের প্রশ্ন

তিনি কি সুচিকিৎসা পেয়েছেন?

আল্লামা সাঈদীর চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি মহাসচিবের প্রশ্ন


মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর : ফাইল ছবি

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর : ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি

জামায়াতে ইসলামীর নেতা আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী মৃত্যুর আগে সুচিকিৎসা পেয়েছিলেন কি না এনিয়ে সন্দেহ পোষণ করে প্রশ্ন রেখেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ঠাকুরগাঁওয়ের মির্জা রুহুল আমিন মিলনায়তনে বুধবার (১৬ই আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ প্রশ্ন রাখেন।

শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে আল্লামা সাঈদী শাহাদাতবরণ করেছে বলে ঘোষণা করেন আওয়ামী ডাক্তাররা।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘তাঁর (আল্লামা সাঈদী) রাজনৈতিক জীবন নিয়ে আমি কথা বলব না, তবে তিনি একজন প্রখ্যাত আলেম ছিলেন। আমরা তার প্রতি অবশ্যই শ্রদ্ধা জানাব। তাঁর (সাঈদী) চিকিৎসার সুব্যবস্থা হয়েছে বলে আমরা পত্রপত্রিকায় দেখতে পাচ্ছি না। তাঁকে যে কারণে সাজা দেয়া হয়েছে, সেটা পুরোপুরি ন্যায়বিচার হয়েছে কি না, আমরা জানি না। কারণ দেশে-বিদেশে এ বিষয়ে অনেক প্রশ্ন আছে যে, আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী এ বিচার হয়নি।’

সরকার জঙ্গি নিয়ে নাটক করছে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের মন্ত্রীদের এখন প্রায়ই বলতে শোনা যায়, বিএনপি নির্বাচনে আসুক না আসুক, তাতে কিছু আসে যায় না। আরও বলতে শোনা যায়, বিএনপি নাশকতা করবে, বিএনপি অগ্নিসংযোগ করবে। ক’দিন আগেই একই নাটক আপনারা দেখেছেন। সে নাটক কী?

জঙ্গি নাটক প্রসঙ্গে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘হঠাৎ করে এক গ্রামে রেইড করে ১০ জনকে আটক করেছে, যাদের মধ্যে ৬ জন মহিলা, ৪ জন শিশু। তাদের অপরাধ কী? তারা নাকি জঙ্গিদের আশ্রয় দিয়েছে। ওখানে নাকি বিস্ফোরক পাওয়া গেছে। এ কথা আপনারা বিশ্বাস করেন?’

গত ১২ই আগস্ট মৌলভীবাজারের কুলাউড়া থানার দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় কথিত জঙ্গি আস্তানা থেকে ১০ জনকে আটক করা হয় বলে জানায় পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

অভিযান শেষে এ ইউনিটের প্রধান মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বলেন, ‘আটককৃত ১০ জনের বাড়ি দেশের বিভিন্ন এলাকায়। তাদের সাথে তিন শিশুও রয়েছে।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘তারা (সরকার) এর আগে ঘোষণা দিল দেশে কোনো জঙ্গি নেই। তারা বলেছে দেশ থেকে জঙ্গি নির্মূল হয়ে গেছে। তাহলে এত জঙ্গি কোথা থেকে এলো?

‘কাজেই জঙ্গি অভিযান ও জঙ্গি গ্রেপ্তার তাদের পুরোনো নাটক। এসব করে জনগণকে আর বোকা বানানো যাবেনা, যা আপনারা ঢাকার সমাবেশের উপস্থিতিতে জানিয়েছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category