আজ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১১:০২

বার : শনিবার

ঋতু : বসন্তকাল

৪০ শতাংশ ভোটার উপস্থিতি সোজা কথা নয়: শেখ হাসিনা

৪০ শতাংশ ভোটার উপস্থিতি সোজা কথা নয়: শেখ হাসিনা


শেখ হাসিনা : ফাইল ছবি

শেখ হাসিনা : ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফ্যাসিবাদী সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার নতুন বয়ান হাজির করেছেন। তাঁর ভাষায় ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হওয়া জাতীয় সংসদ নির্বাচন অত্যন্ত স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ হয়েছে। এবারের নির্বাচনে কেউ বলতে পারবে না যে রাতে ভোট দিয়েছে, দিনের ভোট রাতে দিয়েছে, ভোট কারচুপি হয়েছে।

পুরো মুক্তিযুদ্ধের সময়টি পাকিস্তানে কাটিয়ে শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশে ফেরত আসার দিনটিকে (১০ জানুয়ারি) স্মরণ করে আয়োজিত সমাবেশে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

বুধবার (১০ জানুয়ারি) রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ এই স্মরণ সভাপতির আয়োজন করে।

নির্বাচনের কমিশনের বানানো কাস্টিং ভোট ৪০ দশমিক ৮ শতাংশে সন্তোষ প্রকাশ করেন শেখ হাসিনা। তাঁর ভাষায় এত ভোটার উপস্থিতি সোজা কথা নয়।

শেখ হাসিনা প্রকাশ্যেই স্বীকার করেছেন, আওয়ামী লীগ ও সমমনা দল গুলোই শুধু নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল। অন্য সবাই নির্বাচনকে ব্যাহত করতে চেষ্টা করেছিল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেখ হাসিনার ভাষায়, আইন করে সম্পূর্ণ স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে। সেই নির্বাচন কমিশনকে আমরা নির্বাচন পরিচালনা করতে দেওয়া হয়েছে এবং কোনো রকম হস্তক্ষেপ করা হয়নি। বরং সহযোগিতা করেছে শেখ হাসিনার সরকার। সেই সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা, প্রশাসন থেকে শুরু করে সব কিছুই নির্বাচন কমিশনের হাতে ন্যস্ত ছিল।

তিনি বলেন, অনেকেই নির্বাচন বন্ধ করতে চেয়ে ব্যর্থ হয়েছে। নির্বাচনে মানুষ যাতে ভোট দিতে না আসে সেটা করার চেষ্টা করেছে। তারপরও ৪১ দশমিক ৮ ভাগ ভোট পড়েছে। এটা সোজা কথা নয়! আওয়ামী লীগ এবং আমাদের সমমনা দল যখন নির্বাচন করেছে আরেকটি দল তখন নির্বাচন ব্যাহত করার চেষ্টা করেছে।

তাঁর অধীনে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের সমালোচনাকারীদের উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা বলেন, অবাক লাগে যখন মিলিটারি ডিক্টেটররা ক্ষমতা গ্রহণ করেছিল তখন সেই নির্বাচন নিয়ে যারা কথা বলতো না আজকে যখন আমরা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি তখনই আমাদের গণতন্ত্র ও নির্বাচন নিয়ে তারা প্রশ্ন তুলছেন।

তাঁর ভাষায়, জনগণের ভোটের অধিকার জনগণের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছেন। গণতন্ত্রকে সুসংহত করেছেন। দীর্ঘদিন গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত আছে বলে আজকে এ দেশের মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়ন হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category