আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : বিকাল ৫:১৬

বার : রবিবার

ঋতু : গ্রীষ্মকাল

সোনার অলংকার বিক্রির ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৬ শতাংশ মজুরি নির্ধারণ ।

সোনার অলংকার এক্সচেঞ্জ ও পারচেজে বাদের হার ও সোনার অলংকার বিক্রিতে ন্যূনতম মজুরি পুননির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস)। এখন সোনার অলংকার বিক্রির ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৬ শতাংশ মজুরি নির্ধারণ করা হয়েছে।

বাজুসের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে মঙ্গলবার (১৪ মে) বাজুস থেকে জানানো হয়েছে।
নতুন নিয়ম অনুযায়ী, সোনার অলংকার এক্সচেঞ্জ বা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ ও পারচেজ বা ক্রেতার কাছ থেকে কেনার ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ বাদ যাবে। আগে সোনার অলংকার এক্সচেঞ্জ বা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ৯ শতাংশ ও পারচেজ বা ক্রেতার কাছ থেকে কেনার ক্ষেত্রে ১৩ শতাংশ বাদের নিয়ম কার্যকর ছিল।

বাজুস জানিয়েছে, বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে সোনার অলংকার বিক্রির সময় ন্যূনতম মজুরি ৬ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে।
সোনার অলংকার বিক্রির সময় ভারতে ১২ শতাংশ, শ্রীলংকায় ৮ শতাংশ, চীনে ১৫ শতাংশ, ইতালিতে ২০ শতাংশ, হংকংয়ে ৩০ শতাংশ, মালয়েশিয়ায় ৩৫ শতাংশ, অস্ট্রেলিয়ায় ২০ শতাংশ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৬ শতাংশ, যুক্তরাজ্যে ১৪ শতাংশ পর্যন্ত মজুরি গ্রহণ করা হয় বলেও জানিয়েছে বাজুস।

বাংলাদেশের সব জুয়েলারি ব্যবসায়ীকে সোনার অলংকার এক্সচেঞ্জ বা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ ও পারচেজ বা ক্রেতার কাছ থেকে কেনার ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ বাদের নিয়ম কার্যকর এবং সোনার অলংকার বিক্রির সময় ক্রেতার কাছ থেকে ৬ শতাংশ মজুরি নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে বাজুস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category