আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : বিকাল ৫:১৬

বার : রবিবার

ঋতু : গ্রীষ্মকাল

দুবাইয়ে আবাসন খাতে সম্পদের পাহাড় বাংলাদেশীদের।

দুবাইয়ে আবাসন খাতে সম্পদের পাহাড়। এসব পাহাড় জমা করছেন বিশ্বের ধনী ব্যক্তিরা। তার মধ্যে আছেন বিভিন্ন রাজনীতিক, অপরাধী, অর্থ পাচারকারী এবং নিষেধাজ্ঞা পাওয়া লোকজন। তালিকায় আছেন ৩৯৪ জন বাংলাদেশিও। ২০২২ সালে তারা দুবাইয়ে ৬৪১টি সম্পদের মালিক হয়েছেন। এর মূল্য ২২ কোটি ৫৩ লাখ ডলার। তবে এসব বাংলাদেশি কারা তাদের নাম বা পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তালিকায় আছেন ভারতীয়রাও। তার মধ্যে ভারতের ধনকুবের মুকেশ আম্বানি অন্যতম। আছেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারির পরিবারের সদস্যরাও।
‘দুবাই আনলকড’ শীর্ষক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। এই অনুসন্ধানী প্রকল্পে সমন্বয় করেছে অর্গানাইজড ক্রাইম অ্যান্ড করাপশন রিপোর্টিং প্রজেক্ট (ওসিসিআরপি) ও নরওয়ের ই-টোয়েন্টিফোর। তা প্রকাশ করেছে ট্যাক্স অবজার্ভেটরি ডট ইইউ সহ বিভিন্ন মিডিয়া। এতে বলা হয়, ২০২০ সালে ৪০৫ জন বাংলাদেশি দুবাইয়ে ৬৫৭টি সম্পদের মালিক হয়েছিলেন। এর মূল্য ছিল ২১ কোটি ১২ লাখ ডলার।
আরও বলা হয়, সিটি-ওয়াইজ ২০২০ সালে ৫৬২ জন বাংলাদেশি এমন সম্পদের মালিক ছিলেন। এর মূল্য ছিল ৩৭ কোটি ৫৩ লাখ। কিন্তু ২০২২ সালে এমন বাংলাদেশির সংখ্যা কিছুটা কমে দাঁড়ায় ৫৩২ জনে। তাদের সংখ্যা কমলেও সম্পদের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৭ কোটি ৭৪ লাখ ডলার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category