আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৭:৩৫

বার : সোমবার

ঋতু : বর্ষাকাল

যা বললেন শান্ত যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হারের পর!

প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আন্তর্জাতিক ম্যাচে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ দল। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ৫ উইকেটে হেরেছে শান্তরা। বাংলাদেশ প্রথম ব্যাট করতে নেমে ১৫৩ রান সংগ্রহ করে। যুক্তরাষ্ট্র ব্যাট করেতে নেমে বাংলাদেশকে হারিয়েছে ৫ উইকেটে।এমন হারের জন্য নিজেদের ব্যাটিংকেই মূল দায়টা দিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। একইসঙ্গে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার জন্য তিনি ভালো উইকেটে খেলতে না পারাকেও অভিযুক্ত করেছেন।

শান্ত বলেন, ‘আমার মনে হয় আমরা ভালো ব্যাট করিনি। মাঝের ওভারে বেশ কিছু উইকেট হারিয়েছি আমরা। যদিও দারুণ শুরু পেয়েছিলাম, তবে শেষটা ভালোভাবে করতে পারিনি। মাঝে উইকেট হারিয়ে না ফেললে আরও ২০ রান বেশি করতে পারতাম। তাহলে অন্যরকম হতে পারত ম্যাচটা।’

তিনি বলেন, ‘আমি এটাকে ভুলের পুনরাবৃত্তি মনে করি না। আমার মনে হয় আমরা ভালো উইকেটে খেলছি না। জিম্বাবুয়ে সিরিজেও ভালো উইকেটে খেলিনি। তবে এটা মানসিক ব্যাপার। আশা করি ব্যাটসম্যানরা ঘুরে দাঁড়াতে পারবে। (প্রবাসী
বাংলাদেশিরা) হতাশ হয়ে ফিরে গেছেন, তার কারণ আমরা ভালো খেলিনি। সামনের ম্যাচে চেষ্টা করব যেন একটা ভালো খেলতে পারি।’

বাংলাদেশের হয়ে আগে ব্যাটিং করতে নেমে তাওহীদ হৃদয়ের ফিফটি ও মাহমুদউল্লাহর রিয়াদের (৩১) ক্যামিওতে টাইগাররা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৩ রান তোলে। যার বিপরীতে যুক্তরাষ্ট্রকে আটকাতে পারেননি টাইগার বোলাররা। পঞ্চম উইকেট জুটিতে হারমিত সিং ও কোরি অ্যান্ডারসনের ৬২ রান করে ৩ বল হাতে রেখেই স্বাগতিকদের জয় এনে দেন। ডেথ ওভারে সফরকারী বোলাররা ভালো করতে পারেননি বলে উল্লেখ করেছেন শান্ত, ‘সব স্পিনাররা ভালো বোলিং করেছে। আমাদের পেসাররা শেষ দুই-তিন ওভারে পরিকল্পনা মতো বোলিং করতে পারেনি। আশা করি পরের ম্যাচে ওরা ভালো করবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে সুযোগ–সুবিধার বিষয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘এগুলা নিয়ে কোনো অজুহাত নেই। যেরকম ফ্যাসিলিটি আছে এগুলোর মধ্যেই খেলতে হবে আমাদের। আমরা জানি না বিশ্বকাপ শুরু হলে কী পরিস্থিতি থাকবে। এটা সবাই এডজাস্ট করছে এবং এটা নিয়ে কারও কোনো অজুহাত নেই।’

এ ছাড়া সিরিজ শুরুর কয়েকদিন আগে ঝড়ের কবলে পড়েছিল হিউস্টনের প্রেইরি ক্রিকেট কমপ্লেক্স। এরপর দ্রুত মাঠ প্রস্তুত করার জন্য গ্রাউন্ডসম্যানদেরও কৃতিত্ব দিয়েছেন শান্ত, ‘মাঠ তৈরি করতে এখানে সবাই অনেক কাজ করেছে। হয়তো আমরা আজ না–ও খেলতে পারতাম। কিন্তু আমরা খেলতে পেরেছি। আশা করছি সামনের ম্যাচগুলোয় মাঠ আরও ভালো থাকবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category