আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৭:৩৬

বার : সোমবার

ঋতু : বর্ষাকাল

তদন্ত কমিটি ফল কেলেঙ্কারির ঘটনায় দুই মাসেও কাজ শুরু করেনি।

–বোর্ড চেয়ারম্যানকে স্মারকলিপি মুক্তিযোদ্ধাদের
–ঘেরাও, অনশনসহ আন্দোলনের ঘোষণা
চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের সচিব ও সাবেক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নারায়ণ চন্দ্রের ফল জালিয়াতি কেলেঙ্কারির বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা দুই মাসেও কার্যকর হয়নি। গঠিত তদন্ত কমিটিও এসময়ে কাজ শুরু করেনি। এ নিয়ে দ্রুত তদন্তসহ ফল জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত সচিবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানকে স্মারকলিপি দিয়েছে মুক্তিযোদ্ধারা।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে চেয়ারম্যানের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে এ স্মারকলিপি দেওয়া হয়। শিক্ষা বোর্ডটির বিভিন্ন পর্যায়ের ফলাফল কেলেঙ্কারি প্রশাসনিক জালিয়াতি এবং আর্থিক অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে এর আগে তীব্র প্রতিবাদ ও ক্ষোভ জানিয়ে আসছিলেন তারা।
এর আগে নারায়ণ চন্দ্রের বিরুদ্ধে নিজ সন্তানের ভর্তি, জিপিএ-৫ প্রাপ্তির টেম্পারিংসহ বিভিন্ন কেলেঙ্কারির চাঞ্চল্যকর দুর্নীতির তথ্য-প্রমাণ ধারাবাহিকভাবে গণমাধ্যমে প্রকাশের পর ১৬ এপ্রিল তিন সদস্যের কমিটি গঠনের কথা জানানো হয়। অধিদপ্তরের মনিটরিং ও ইভালুয়েশান উইংয়ের পরিচালক মো. আমির হোসেনকে কমিটির আহ্বায়ক করা হয়। কমিটিতে অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আশেকুল হক এবং ইএমআইএস সেলের খন্দকার আজিজুর রহমানকে সদস্য করা হয়।

বাংলাদেশ মুক্তি সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্র ট্রাস্ট চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের মাধ্যম হয়ে পুরো ঘটনা তদন্তের নির্দেশনা আসে। তবে দুই মাস অতিক্রান্ত হওয়ার পরও এ তদন্ত ফাইল উপেক্ষিত থাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সচেতন জনগণের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।
এ বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধারা অতি দ্রুত তদন্ত কার্য সম্পাদন করে দায়ীকে যথাযথ শাস্তি দেওয়ার মাধ্যমে জাতির গুরুত্বপূর্ণ এ প্রতিষ্ঠানকে দুর্নীতিমুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category