আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : ভোর ৫:৩৪

বার : সোমবার

ঋতু : বর্ষাকাল

বৈধ সম্পদের চেয়ে অবৈধই বেশি সাবেক সহকারী কর কমিশনারের।

এক কোটি ৮৫ লাখ ৯৫ হাজার ৭৯২ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সাবেক সহকারী কর কমিশনার শ্যামল কৃষ্ণ দাসের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সম্প্রতি দুদকের সহকারী পরিচালক মো. মাহাবুব মোর্শেদ বাদী হয়ে সংস্থাটির সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১ এ মামলাটি দায়ের করেন। বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুদক সূত্রে বিষয়টি জানা গেছে।
মামলার এজাহারে বলা হয়, অভিযুক্ত ব্যক্তি জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ এক কোটি ৮৫ লাখ ৯৫ হাজার ৭৯২ টাকার সম্পদ অর্জনপূর্বক ভোগ দখলে রেখে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৭(১) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। সুনির্দিষ্ট অভিযোগে তার সম্পদ বিবরণী তলব করে দুদক।

দুদকে দাখিল করা সম্পদ বিবরণী যাচাইয়ে দেখা যায়, শ্যামল কৃষ্ণ দাস মোট দুই কোটি ৭৩ লাখ ৮৩ হাজার ৮১৭ টাকার সম্পদের ঘোষণা দেন। সম্পদ বিবরণী যাচাইয়ে আসামির নামে কোনো ঋণ বা দায়ের তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে একই সময়ে পারিবারিক ও অন্যান্য ব্যয় পাওয়া যায় ৩১ লাখ ১৩ হাজার ২০০ টাকা। ব্যয়সহ তার অর্জিত সম্পদের মূল্য দাঁড়ায় তিন কোটি চার লাখ ৯৭ হাজার ১৭ টাকা।
অন্যদিকে, অভিযুক্ত ব্যক্তির নামে গ্রহণযোগ্য আয় পাওয়া যায় এক কোটি ১৯ লাখ এক হাজার ২২৫ টাকা। এক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য আয়ের চেয়ে বেশি এক কোটি ৮৫ লাখ ৯৫ হাজার ৭৯২ টাকার যে সম্পদ পাওয়া গেছে তার কোনো বৈধ উৎসের রেকর্ডপত্র বা সাক্ষ্য-প্রমাণ আসামি দাখিল করতে পারেননি। এ কারণে ওই সম্পদকে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত মর্মে প্রতীয়মান করে দুদক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category