আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৬:১৫

বার : সোমবার

ঋতু : বর্ষাকাল

মূলধন কমেছে ৪৮ হাজার কোটি টাকার বেশি টানা দরপতনে বাজার।

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগকারীদের লোকসানের পাল্লা ক্রমেই ভারী হচ্ছে। টানা দরপতনে গত এক সপ্তাহেই দেশের প্রধান শেয়ার বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বাজার মূলধন কমেছে ৪৮ হাজার কোটি টাকার বেশি। এছাড়া, সবকটি সূচক কমার পাশাপাশি এই বাজারে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ৩২ শতাংশ।
সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেনকৃত মোট ৪১১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে মাত্র ২৮টির, কমেছে ৩৩৮টির। আর ২০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। এতে গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৫৩ হাজার ৬৬ কোটি টাকা। যা তার আগের ঢাকা স্টক এক্সটে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৭ লাখ ১ হাজার ৮২৪ কোটি টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ৪৮ হাজার ৭৫৮ কোটি টাকা। গত সপ্তাহে এই বাজারের সার্বিক সূচক ডিএসইএক্স আগের সপ্তাহের তুলনায় ২০৫ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩১২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া গত সপ্তাহে ডিএস-৩০ সূচক সপ্তাহের ব্যবধানে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ কমে ১ হাজার ৯০৮ পয়েন্টে ও শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ৪ দশমিক ৩ শতাংশ কমে ১ হাজার ১৬০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।দেশের প্রধান এই শেয়ার বাজারে গত সপ্তাহে দৈনিক গড়ে ৫১৭ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যেখানে আগের সপ্তাহে লেনদেন ছিল ৭৪২ কোটি টাকা। সে হিসাবে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ৩২ দশমিক ২৯ শতাংশ।

খাতভিত্তিক লেনদেনচিত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইর মোট লেনদেনের ২৪ দশমিক ৬ শতাংশ দখলে নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে ওষুধ খাত। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১২ দশমিক ৬ শতাংশ দখলে নিয়েছে খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাত। ১১ দশমিক ৬ শতাংশ লেনদেনের ভিত্তিতে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বস্ত্র খাত। বিদায়ি সপ্তাহে ডিএসইতে পাট বাদে সব খাতের শেয়ারে নেতিবাচক রিটার্ন এসেছে।

অন্যবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত লেনদেনকৃত মোট ৩০৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৩০৯টির, কমেছে ২৫২টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির দর। এতে বিদায়ি সপ্তাহে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ কমে ১৫ হাজার ৪০৩ পয়েন্টে নেমে এসেছে। আগের সপ্তাহে যা ছিল ১৬ হাজার ৭ পয়েন্ট।

গত সপ্তাহে এই বাজারে মোট ১৫৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২১৩ কোটি টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category