আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৬:১৯

বার : সোমবার

ঋতু : বর্ষাকাল

সত্যিই কি ঘুম ভালো হয় ফল খেলে?

শরীর এবং মনের কার্যকারিতা ঠিক রাখার জন্য রাতে ভালো ঘুম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি আপনাকে সারাদিন কর্মক্ষম থাকতে সাহায্য করে। কিন্তু এমন অনেকেই আছেন যাদের প্রায় সারারাত বিছানায় এপাশ-ওপাশ করে কেটে যায়। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ক্রমবর্ধমান মানসিক চাপের সঙ্গে সঙ্গে এ ধরনের সমস্যা বেড়ে চলেছে। আপনি সারাদিনে কী খাচ্ছেন তার ওপরেও নির্ভর করে ঘুম কতটা ভালো হবে। তাই খাবারের দিকে খেয়াল রাখা জরুরি। সামগ্রিক ঘুমের চক্রে ফল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলে মনে করা হয়। আসলেই কি তাই? চলুন জেনে নেওয়া যাক-ফলকে সুপারফুড হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ফল বিভিন্ন প্রয়োজনীয় পুষ্টি দিয়ে পরিপূর্ণ যা আপনাকে ভেতর থেকে পুষ্ট করার সঙ্গে সঙ্গে শরীরের আরও ভালো কার্যকারিতায় সহায়তা করে। স্লিপ ফাউন্ডেশনের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ফোলেট এবং পটাসিয়ামের মতো খনিজ সমৃদ্ধ কিছু ফল শরীরে প্রদাহ-বিরোধী প্রভাব ফেলে, অক্সিডেটিভ স্ট্রেস এবং ফ্রি র‌্যাডিকেলের কারণে সৃষ্ট ক্ষতি প্রতিরোধ করে। এই ফাংশনগুলো আপনার ঘুমের মান উন্নত করতে সাহায্য করে।

অ্যাকাডেমি অফ নিউট্রিশন অ্যান্ড ডায়েটিক্সের জার্নালের একটি গবেষণায় বলা হয়েছে যে কিউইয়ের মতো কিছু ফল মস্তিষ্কে উন্নত সেরোটোনিন উৎপাদনের সঙ্গে যুক্ত, যা সরাসরি আপনার ঘুমের চক্রকে নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে।

শোওয়ার আগে ফল খাওয়া কি নিরাপদ?

বিশেষজ্ঞদের মতে, মূল খাবার এবং ফল খাওয়ার মধ্যে নির্দিষ্ট ব্যবধান থাকা উচিত। কারণ উভয়েরই পরিপাকতন্ত্রের ওপর ভিন্ন প্রভাব রয়েছে। ফল দ্রুত হজম হয়। অপরদিকে প্রোটিন এবং ফাইবার সমৃদ্ধ খাবারের আরও বেশি সময় প্রয়োজন হয়। তাই ভালো হজম এবং পুষ্টির জন্য মূল খাবার ও ফল খাওয়ার মাঝে বিরতি দিতে হবে।

সর্বোত্তম অভ্যাস হলো বিছানায় যাওয়ার আগে এমন কিছু না করা যা ঘুম নষ্ট করতে পারে। বিছানায় যাওয়ার আগে ফল খাওয়ার কারণে প্রচুর পরিমাণে সুগার বের হতে পারে, যার ফলে শরীর যখন ধীরগতির এবং বিশ্রাম নেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে তখন শক্তির বৃদ্ধি ঘটতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category